জ্যোতির্ময় মুখোপাধ্যায়-এর কবিতা

Spread This

জ্যোতির্ময় মুখোপাধ্যায়

বিব্রতকর এক আগন্তুকের উদ্দেশ্যে

কী বলব বুঝতে পারছিলাম না
আমার আশঙ্কা ছিল, সে আমাকে খুঁজে নেবে
আর আজ সে আমার সামনে এসে দাঁড়িয়েছে
এবং আমি তাকে বললাম, অবাক হয়ো না
দর্শনীয় যা কিছু, তাকে
দৃশ্য ভেবে ভুল করো না
সে আমার কথা শুনল
এবং মানল
এবং চোখ তুলে তাকালো
তার সামনেই আমি দাঁড়িয়ে ছিলাম
আর সে আমাকে অতিক্রম করে
দৃশ্য হয়ে চলে গেল
এবং একটা টোকা দিয়ে তাকে শুধালাম
সবচেয়ে সহজ কোন সে পথ
যাতে, অদ্ভুত এই মিথ্যার
সত্য জানা যাবে

 

 

একটি প্রশস্ত ঝগড়ার উপলক্ষে


হামাগুড়ির সম্ভাবনা ছিল যতটুকু
ততটুকু সবার অলক্ষ্যে
অতিক্রম করে
নিজের প্রান্তসীমায় এসে দাঁড়ালাম
ঝুঁকে দেখছিলাম
খুব ভিতরে
এবং বাইরে
অসংখ্য সুন্দর ও ভয়াবহ প্রান্তগুলি
যেন অসংখ্য চিল উড়ছে
বৃত্তের নেশায়
মিশে যাবে বলে
এবং মিশে যাব বলে
কল্পনা করলাম, এবার মুড়িয়ে রাখতে হবে নিজেকে
এবং স্পষ্টতই খুব আড়ষ্ট ছিলাম
যেন এক স্পাইরাল দ্বিধা
ডান ও বাম মস্তিষ্কের সীমান্তে দাঁড়িয়ে
ঝগড়া করছিল আমার সঙ্গে
ভয় পাবার কিছু নেই, বললাম নিজেকে
এবং আশ্বস্ত করলাম
খুব দূরে একটা প্রশস্ত কেন্দ্র আছে
আমাকে শুধু সেইটুকু পথ হেঁটে যেতে হবে
খুঁজে খুঁজে
দুপাশের এই তীক্ষ্ণ জানা ও চেনা ঠেলে