শান্তনু মণ্ডল-এর কবিতা

Spread This

শান্তনু মণ্ডল

সেই আনন্দরাগ
 
সেই আনন্দরাগ কবেকার সুইসাইড নিয়ে খেলছে, তার ওষুধ নিয়ে চলেছি অপরাহ্ণের ছাদে, মাকে বলিনি আমার সুইসাইড আর সে পাশাপাশি থাকে।
আমার কোন কান নেই, এক কানা কে দেখি গাছে উঠতে অবাক পূর্ণিমা চোখে
শিল্পীর নাতিপুতিরা খেলছে     অবাধ জল
সবচোখে সরোবর হয় না
                          রঙ ধার করা
                          স্বপ্ন কেরোসিন
                         জ্বলা নেভা জ‍্যোৎস্নামাথা
                          ফুটছে সারারাত
 
 
 
 
একটু স্বপ্ন পড়ি
 
একটু স্বপ্ন পড়ি     জলে পড়ার আগে
এক দুপুর  গাছে গাছে ফল
                মাঘ বরণ করতে এসেছে
শুধু এইটুকুই মৃত‍্যুকালে মা প্রেমিকার দল
আমি সাঁতার শিখেছি
ক্ষত’র ছাল তুলে দেখছি বৃষ্টি কিভাবে মা বলে ডাকে
এ চেয়ার থেকে উড়ালপুল পর্যন্ত বাঁশি বাজছে
আকাশ এত বিটোভেনের চড়ুইভাতি
সংশ্লেষ সারাংশ বসে লিখি
বয়স কমতে থাকে 
লোকাল ট্রেন দেখতে পাই না
উলু পড়ে       আঁচের আগে এই ধোঁয়াপিদ্দিম
নোটেশান 
প্রেমের লিঙ্গ খানি
কেমন খালি পেটে পোস্ট করলাম